ঢাকা ১০:১৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
ঘাটাইলে কোটা সংস্কারের দাবিতে সড়ক অবরোধ কালিহাতীতে কোটা সংস্কারের দাবিতে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ কোটা আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ টাঙ্গাইলে নাইট কেয়ার সেন্টার পরিদর্শন ও ষান্মাসিক সমন্বয় সভা বাসাইলে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও পুরস্কার বিতরণ ঘাটাইলে স্বামীর গোপনাঙ্গ কাটার অভিযোগে মামলা, মামলা না তোলায় সন্ত্রাসী হামলা ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ টাঙ্গাইলে বিবেকানন্দ স্কুলের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ঘাটাইলে কচুরিপানা পরিষ্কার করতে নেমে বৃদ্ধের মৃত্যু ধনবাড়ীতে কোটা আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন

মাভাবিপ্রবিতে সামুদ্রিক মাছে ভারী ধাতুর মাত্রা ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিষয়ক সেমিনার

মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি :
প্রকাশ: ০৮:৩৮:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০২৪

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ব্যানবেইজের অধীনে ‘বঙ্গোপসাগর কোস্টে বিভিন্ন সময়ে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়াতে ভারী ধাতুর মাত্রা এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে এর প্রভাব’ প্রজেক্টের সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৯ জুন) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ট্রেজারারের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সেমিনারের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. ফরহাদ হোসেন।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ আর এম সোলাইমান, লাইফ সায়েন্স অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. উমর ফারুক ও এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এ এস এম সাইফুল্লাহ। গবেষণার মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধান গবেষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. সিরাজুল ইসলাম।

রিভিউয়ার হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মো. আসলাম আলী ও কক্সবাজার বিএফআরই এর সাবেক সিএসও ড. এম. এনামুল হক। সেশনের সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট প্রফেসর ড. মীর মো. মোজাম্মেল হক।

সেমিনারে গবেষকগণ বলেন, বিশ্বে পরিবেশগত দুষণে সমুদ্রের পানিতেও দুষণ দেখা দিয়েছে। সামুদ্রিক দুষণে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়াতে ভারী ধাতু প্রবেশ করছে। মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়ার শরীরে গ্রীষ্মকাল (ফেব্রুয়ারি-মে), বর্ষাকাল (জুন-সেপ্টেম্বর) ও শীতকালে (অক্টোবর-জানুয়ারি) ভারী ধাতু (ক্যাডমিয়াম, ক্রোমিয়াম, লেড ও জিংক) এর মাত্রা পরীক্ষা করা হয়। বর্তমানে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়ার শরীরে ভারী ধাতুর উপস্থিতির মাত্রা মানব শরীরের জন্য স্বাস্থ্য ঝুঁকি কম, তবে দুষণের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে ভারী ধাতুর উপস্থিতির মাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। এজন্য সচেতনতা ও উচ্চতর গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।

এম.কন্ঠ/ ২৯ জুন /এম.টি

নিউজটি শেয়ার করুন

মাভাবিপ্রবিতে সামুদ্রিক মাছে ভারী ধাতুর মাত্রা ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিষয়ক সেমিনার

প্রকাশ: ০৮:৩৮:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুন ২০২৪

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ব্যানবেইজের অধীনে ‘বঙ্গোপসাগর কোস্টে বিভিন্ন সময়ে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়াতে ভারী ধাতুর মাত্রা এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে এর প্রভাব’ প্রজেক্টের সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৯ জুন) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ট্রেজারারের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সেমিনারের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. ফরহাদ হোসেন।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ আর এম সোলাইমান, লাইফ সায়েন্স অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. উমর ফারুক ও এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এ এস এম সাইফুল্লাহ। গবেষণার মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধান গবেষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. মো. সিরাজুল ইসলাম।

রিভিউয়ার হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মো. আসলাম আলী ও কক্সবাজার বিএফআরই এর সাবেক সিএসও ড. এম. এনামুল হক। সেশনের সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট প্রফেসর ড. মীর মো. মোজাম্মেল হক।

সেমিনারে গবেষকগণ বলেন, বিশ্বে পরিবেশগত দুষণে সমুদ্রের পানিতেও দুষণ দেখা দিয়েছে। সামুদ্রিক দুষণে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়াতে ভারী ধাতু প্রবেশ করছে। মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়ার শরীরে গ্রীষ্মকাল (ফেব্রুয়ারি-মে), বর্ষাকাল (জুন-সেপ্টেম্বর) ও শীতকালে (অক্টোবর-জানুয়ারি) ভারী ধাতু (ক্যাডমিয়াম, ক্রোমিয়াম, লেড ও জিংক) এর মাত্রা পরীক্ষা করা হয়। বর্তমানে সামুদ্রিক মাছ, চিংড়ি ও কাঁকড়ার শরীরে ভারী ধাতুর উপস্থিতির মাত্রা মানব শরীরের জন্য স্বাস্থ্য ঝুঁকি কম, তবে দুষণের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে ভারী ধাতুর উপস্থিতির মাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। এজন্য সচেতনতা ও উচ্চতর গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।

এম.কন্ঠ/ ২৯ জুন /এম.টি