ঢাকা ০৬:৩৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
কোটা বাতিলের দাবিতে টাঙ্গাইলে ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ টাঙ্গাইলে যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রমে সাঁকো নির্মাণ টাঙ্গাইলে সেতুর সংযোগ সড়ক ধ্বসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ভূঞাপুরে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষিকাকে কু-প্রস্তাব ও যৌন হয়রানির অভিযোগ শিক্ষকের সাময়িক বরখাস্তের প্রতিবাদে ভূঞাপুরে সংবাদ সম্মেলন মাদক না ছাড়লে টাঙ্গাইল ছাড়ার হুশিয়ারি এসপির টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল (বালক অনুর্ধ্ব-১৭) টুর্নামেন্টে পোড়াবাড়ি চ্যাম্পিয়ন টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারকে বদলি জনিত বিদায় সংবর্ধনা বাসাইলে নিরাপদ অভিবাসন ও বিদেশ-ফেরতদের পুনরেকত্রীকরণ শীর্ষক কর্মশালা টাঙ্গাইলে সপ্তাহব্যাপী বৃক্ষ মেলা শুরু

টাঙ্গাইলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, অস্বস্তিতে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রকাশ: ০১:০৫:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

টাঙ্গাইলে প্রতিনিয়ত বাড়ছে তাপমাত্রার পারদ। প্রতি দিনই রেকড ভাঙছে জেলা তাপমাত্রা। সোমবার বিকেল ৩ টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এই প্রখর রোদ ও গরমে নাকাল হচ্ছে জনজীবন। বিশেষ করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে দেখা গেছে। প্রচন্ড রোদ গায়ে মেখে বিদ্যালয়ে আসছে শিক্ষার্থীরা। কেউ ছাতা আবার কেউ খাবার পানি সঙ্গে আনছেন। তারপরও অস্বস্তিতে শিক্ষার্থীদের হাঁসফাঁস করতে দেখা গেছে।

সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন এলাকা ও বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, প্রচন্ড গরমেও অনেক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হচ্ছেন। অনেকেই গরম সহ্য করতে না পেরে কেউ হাতপাখা আবার কেউ বই দিতে বাতাশ নিতে দেখা গেছে। আবার অনেকেই স্কুল ব্যাগে করে স্যালাইনসহ খাবার পানি নিয়ে এসেছেন।

শহরের পুলিশ লাইনস আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাহমিনা আক্তার বলেন, ঈদের পরে রোববার থেকে স্কুলে ক্লাশ চলছে। তাই গরমে কষ্ট হলেও ক্লাশ করছি। সাথে স্যালাইনসহ ঠান্ডা পানি নিয়ে এসেছি।

টাঙ্গাইল আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জামাল হোসেন বলেন, সোমবার বিকেল ৩ টা পর্যন্ত জেলা তাপমাত্রা ছিলো ৪০ দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ রকম পরিস্থিতি আরও কয়েক দিন থাকবে।

 

এম.কন্ঠ/ ২৯ এপ্রিল/এম.টি

নিউজটি শেয়ার করুন

টাঙ্গাইলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, অস্বস্তিতে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশ: ০১:০৫:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

টাঙ্গাইলে প্রতিনিয়ত বাড়ছে তাপমাত্রার পারদ। প্রতি দিনই রেকড ভাঙছে জেলা তাপমাত্রা। সোমবার বিকেল ৩ টায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

এই প্রখর রোদ ও গরমে নাকাল হচ্ছে জনজীবন। বিশেষ করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে দেখা গেছে। প্রচন্ড রোদ গায়ে মেখে বিদ্যালয়ে আসছে শিক্ষার্থীরা। কেউ ছাতা আবার কেউ খাবার পানি সঙ্গে আনছেন। তারপরও অস্বস্তিতে শিক্ষার্থীদের হাঁসফাঁস করতে দেখা গেছে।

সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন এলাকা ও বিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, প্রচন্ড গরমেও অনেক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হচ্ছেন। অনেকেই গরম সহ্য করতে না পেরে কেউ হাতপাখা আবার কেউ বই দিতে বাতাশ নিতে দেখা গেছে। আবার অনেকেই স্কুল ব্যাগে করে স্যালাইনসহ খাবার পানি নিয়ে এসেছেন।

শহরের পুলিশ লাইনস আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাহমিনা আক্তার বলেন, ঈদের পরে রোববার থেকে স্কুলে ক্লাশ চলছে। তাই গরমে কষ্ট হলেও ক্লাশ করছি। সাথে স্যালাইনসহ ঠান্ডা পানি নিয়ে এসেছি।

টাঙ্গাইল আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জামাল হোসেন বলেন, সোমবার বিকেল ৩ টা পর্যন্ত জেলা তাপমাত্রা ছিলো ৪০ দশমিক আট ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ রকম পরিস্থিতি আরও কয়েক দিন থাকবে।

 

এম.কন্ঠ/ ২৯ এপ্রিল/এম.টি