ঢাকা ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ
ঘাটাইলে কোটা সংস্কারের দাবিতে সড়ক অবরোধ কালিহাতীতে কোটা সংস্কারের দাবিতে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ কোটা আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধাদের বিক্ষোভ টাঙ্গাইলে নাইট কেয়ার সেন্টার পরিদর্শন ও ষান্মাসিক সমন্বয় সভা বাসাইলে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও পুরস্কার বিতরণ ঘাটাইলে স্বামীর গোপনাঙ্গ কাটার অভিযোগে মামলা, মামলা না তোলায় সন্ত্রাসী হামলা ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ টাঙ্গাইলে বিবেকানন্দ স্কুলের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ঘাটাইলে কচুরিপানা পরিষ্কার করতে নেমে বৃদ্ধের মৃত্যু ধনবাড়ীতে কোটা আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন

ভূঞাপুরে একই বিদ্যালয়ে টানা ১৫ বছর চাকরি, আবেগে ভাসিয়ে মমতাজ খানমের বিদায়

মজলুমের কন্ঠ
প্রকাশ: ০৭:৩৯:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে একই বিদ্যালয়ে এক টানা প্রায় ১৫ বছর দায়িত্ব পালন শেষে অবসরে গেলেন শিক্ষিকা মমতাজ খানম। তিনি ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পৌর শহরের ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোগে মমতাজ খানমকে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়ার আয়োজন করা হয়।

বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে কোমলমতি শিশু ছাত্র-ছাত্রীরা বিদায়ী প্রধান শিক্ষিকা মমতাজ খানমকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন। এরআগে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানস্থলে প্রিয় শিক্ষিকাকে বিদায় জানাতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সহকর্মী ও শিক্ষার্থীরা। এসময় চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি প্রিয় শিক্ষিকাও। উপস্থিত সবাইকে আবেগে ভাসিয়ে বিদায় নেন তিনি।

বিদায়ী বক্তব্যে প্রধান শিক্ষিকা মমতাজ খানম বলেন- ‘এই ভালোবাসার কাছে আমি আজীবন ঋণী হয়ে থাকব। চলার পথে যখন দেখা হবে, ভেবে নিও আমিও তোমাদের একজন ছিলাম’।

প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীরা স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘২০০৯ সালে ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করে প্রিয় ম্যাডাম মমতাজ খানম। ম্যাডাম ছিলেন, মেধাবী ও সংস্কৃতিমনা। তিনি যোগদানের পর থেকেই স্কুলের পাঠদানের পরিবেশ বদলে যায়। মেধাবী শিক্ষার্থী তৈরি হতে থাকে। নিজ গুণে তিনি একজন গুণী প্রিয় শিক্ষিকা হয়েছিলেন। আমাদের প্রিয় ম্যাডাম সুনামের সাথে দীর্ঘ ১৫ বছর এই বিদ্যালয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন।’

গোবিন্দাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুহাম্মদ শাহ আলম সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা চেয়ারম্যান মোছা: নার্গিস বেগম, শিক্ষা অফিসার এম.জি মাহমুদ ইজদানী, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম, ভূঞাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শাহ্ আলম প্রামাণিক, সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী মোল্লা, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমিন নান্নু, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাসান বিন রশিদ, সাংবাদিক আব্দুল লতিফ তালুকদার, ফরমান শেখ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মমতাজ খানমের জন্ম ১৯৬৫ সালে। তার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া গ্রামে এবং স্বামীর বাড়ি পাশ্ববর্তী ভূঞাপুর উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের ভারই গ্রামে। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এম.এ, সি.এন.এড। শিক্ষকতা পেশায় সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে ১৯৯৫ সালে যোগদানের পর ২০০৯ সালে ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন।

ট্যাগ :

নিউজটি শেয়ার করুন

ভূঞাপুরে একই বিদ্যালয়ে টানা ১৫ বছর চাকরি, আবেগে ভাসিয়ে মমতাজ খানমের বিদায়

প্রকাশ: ০৭:৩৯:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে একই বিদ্যালয়ে এক টানা প্রায় ১৫ বছর দায়িত্ব পালন শেষে অবসরে গেলেন শিক্ষিকা মমতাজ খানম। তিনি ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পৌর শহরের ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোগে মমতাজ খানমকে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়ার আয়োজন করা হয়।

বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে কোমলমতি শিশু ছাত্র-ছাত্রীরা বিদায়ী প্রধান শিক্ষিকা মমতাজ খানমকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন। এরআগে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানস্থলে প্রিয় শিক্ষিকাকে বিদায় জানাতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সহকর্মী ও শিক্ষার্থীরা। এসময় চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি প্রিয় শিক্ষিকাও। উপস্থিত সবাইকে আবেগে ভাসিয়ে বিদায় নেন তিনি।

বিদায়ী বক্তব্যে প্রধান শিক্ষিকা মমতাজ খানম বলেন- ‘এই ভালোবাসার কাছে আমি আজীবন ঋণী হয়ে থাকব। চলার পথে যখন দেখা হবে, ভেবে নিও আমিও তোমাদের একজন ছিলাম’।

প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীরা স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘২০০৯ সালে ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করে প্রিয় ম্যাডাম মমতাজ খানম। ম্যাডাম ছিলেন, মেধাবী ও সংস্কৃতিমনা। তিনি যোগদানের পর থেকেই স্কুলের পাঠদানের পরিবেশ বদলে যায়। মেধাবী শিক্ষার্থী তৈরি হতে থাকে। নিজ গুণে তিনি একজন গুণী প্রিয় শিক্ষিকা হয়েছিলেন। আমাদের প্রিয় ম্যাডাম সুনামের সাথে দীর্ঘ ১৫ বছর এই বিদ্যালয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন।’

গোবিন্দাসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুহাম্মদ শাহ আলম সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা চেয়ারম্যান মোছা: নার্গিস বেগম, শিক্ষা অফিসার এম.জি মাহমুদ ইজদানী, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম, ভূঞাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শাহ্ আলম প্রামাণিক, সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী মোল্লা, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমিন নান্নু, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হাসান বিন রশিদ, সাংবাদিক আব্দুল লতিফ তালুকদার, ফরমান শেখ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মমতাজ খানমের জন্ম ১৯৬৫ সালে। তার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার লোকেরপাড়া গ্রামে এবং স্বামীর বাড়ি পাশ্ববর্তী ভূঞাপুর উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের ভারই গ্রামে। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এম.এ, সি.এন.এড। শিক্ষকতা পেশায় সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে ১৯৯৫ সালে যোগদানের পর ২০০৯ সালে ভূঞাপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন।